Wednesday , 21 November 2018

এইমাত্র পাওয়া খবর
Home » খেলাধুলা » নওগাঁর মহাদেবপুরে ডাক বাংলো মাঠে হাঁটু জল : ক্রীড়া চর্চা বন্ধ

নওগাঁর মহাদেবপুরে ডাক বাংলো মাঠে হাঁটু জল : ক্রীড়া চর্চা বন্ধ

July 30, 2018 8:41 am by: Category: খেলাধুলা, নওগাঁ জেলার খবর Leave a comment A+ / A-

নওগাঁ জেলা সংবাদদাতা : থৈ থৈ করছে হাঁটু জল। দেখলে বিশ্বাসই হবে না যে এটাই নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলা শহরের প্রাণ কেন্দ্রে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী ডাক বাংলো মাঠ। সাকিব, তামিম, মুশফিক, রুবেল, সৌম্যরা যখন দেশ মাতিয়ে রাখছেন তখন বর্ষা মৌসুমে পানির নিচে ডুবে থাকে এ মাঠ। স্যাঁতসেঁতে মাঠে নিয়মিত খেলা কিংবা অনুশীলন করা সম্ভব হয়ে ওঠে না। কিন্তু এ মাঠেই ক্রিকেট, ফুটবল, হ্যান্ডবলসহ উপজেলা পর্যায়ে খেলা অনুষ্ঠিত হয়। তাই মাঠের এ অবস্থার জন্য খেলোয়াড়দের বিড়ম্বনা পোহাতে হচ্ছে। নিয়মিত খেলতে না পারায় ােভ জানিয়েছেন অনেকেই। সামান্য বৃষ্টি হলেই সমস্ত পানি নেমে আসে মাঠে। বন্ধ হয়ে যায় সব খেলা। উপজেলা শহরের একমাত্র ঐতিহ্যবাহী মাঠটি বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। অনাদর, অবহেলা আর চোখের জলে দীর্ঘদিন ভাসছে মাঠটি। উপজেলার মধ্যে এত বড় জনগুরুত্বপূর্ণ মাঠ বিরল। মাঠটি অনেক ঐতিহাসিক স্বার বহন করে চলেছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, একাধিক প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রীপরিষদের অনেক সদস্যসহ সব রাজনৈতিক দলের নেতার পদার্পণ ঘটেছে এই মাঠে। উপজেলার প্রধান ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয় এখানে। এ ছাড়া বিজয় দিবস, স্বাধীনতা দিবস, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের অনুষ্ঠানসহ বিভিন্ন মেলা, বড় ধরনের সভা, সমাবেশ ও নিয়মিত সব ধরনের খেলাধুলা অনুষ্ঠিত হয় এই মাঠে। অথচ নিত্যপ্রয়োজনীয় বিশাল এ মাঠটি যেন এখন অভিভাবক শূন্য। এই মাঠে পানি নিষ্কাাশনের কোন ড্রেন না থাকায় অল্প বৃষ্টি হলেই মাঠটিতে জমে পানি। আর বর্ষা মৌসুমে থাকে হাঁটু পানি, যা মাছ ও ধান চাষের জন্য উপযোগী হয়ে ওঠে। গত কয়েকদিনের বৃষ্টিতে পুরো মাঠটি পানিতে ডুবে গেছে। যার ফলে ক্রীড়ামোদিদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। মাঠ সংলগ্ন উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ ১টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ২টি কিন্ডার গার্ডেন স্কুল থাকায় প্রতিদিন হাজার হাজার ছাত্র-ছাত্রীর সমাগোম হয় এই মাঠে। হাঁটু পানিতে ডুবে থাকায় কোমলমতি শিক্ষার্থীরা খেলাধুলা করতে পরছে না। কর্তৃপ কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় নিয়মিত খেলাধুলা করতে না পারায় শিার্থী ও তাদের অভিভাবকরা ােভ প্রকাশ করেছে। সচেতনদের মতে ‘যুব সমাজকে মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ এর হাত থেকে রায় খেলাধুলার কোন বিকল্প নেই। খেলাধুলা চর্চায় যুব সমাজ ব্যস্ত থাকলে সন্ত্রাসী কার্যক্রম ও মাদকের ছোবল থেকে রা পাওয়া সম্ভব। যত বেশি ক্রীড়ার চর্চা হবে তত বেশি যুব সমাজ মাদক থেকে দুরে সরে যাবে। যে জাতি খেলাধুলায় যত উন্নত তারা পৃথিবীতে তত বেশি বিকশিত। খেলাধুলা যুব সমাজকে অসামাজিক কার্যকলাপ থেকে দুরে রেখে সুন্দর সমাজ গঠনে সহায়ক ভূমিকা পালন করে।’ স্থানীয়রা জানান, উপজেলা সদরে খেলার মাঠের স্বল্পতা রয়েছে। যে ঐতিহ্যবাহী ডাক বাংলো মাঠটি রয়েছে সেখানে জলাবদ্ধতার সমস্যা। এই বিষয়টি নিয়ে ইতিপূর্বে মানববন্ধন হয়েছিল। পানি নিষ্কাশনের সুষ্ঠু ব্যবস্থা না থাকায় বর্ষা মৌসুমে পানিতে তলিয়ে থাকলেও মাঠের সমস্যা সমাধানে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের ঘুম ভাঙছে না। উপজেলাবাসীর দাবি মাঠটি রার জন্য পরিকল্পনার মাধ্যমে ড্রেনেজ ব্যবস্থা গড়ে তোলা হোক। যাতে বর্ষা মৌসুমে পানিতে তলিয়ে না যায় এবং শিার্থীরা সারা বছর খেলাধুলা করতে পারে। এছাড়া আগামী প্রজন্মের খেলোয়াড় সৃষ্টির জন্য আরো একটি ভাল মাঠের প্রয়োজন মহাদেবপুরবাসীর। উক্ত মাঠের নিয়মিত খেলোয়াড় তারেক জানান, মাঠে নিয়মিত ফুটবল, ক্রিকেট, ভলিবল ও কাবাডি খেলা হতো। দীর্ঘদিন ধরে মাঠে বৃষ্টির পানি জমে থাকায় তারা ঠিকমতো খেলাধুলা করতে পারছে না। এক পাশে অল্প একটু শুকনো জায়গা আছে, সেখানে খেলতে হচ্ছে তাদের। একই তথ্য জানায় নাজমুল, নওশাদ, মুরাদ, জুয়েল ও দিপু। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মোবারক হোসেন পারভেজ জানান, মাঠের জলাবদ্ধতার সমস্যা সমাধানে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা হচ্ছে। পানি নিষ্কাশন ও মাঠ উন্নয়নে স্থানীয় সংসদ সদস্যসহ সংশ্লিষ্টদের দ্রুত হস্তপে কামনা করেছেন উপজেলার হাজারো খেলোয়াড় ও শিার্থী।#

নওগাঁর মহাদেবপুরে ডাক বাংলো মাঠে হাঁটু জল : ক্রীড়া চর্চা বন্ধ Reviewed by on . নওগাঁ জেলা সংবাদদাতা : থৈ থৈ করছে হাঁটু জল। দেখলে বিশ্বাসই হবে না যে এটাই নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলা শহরের প্রাণ কেন্দ্রে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী ডাক বাংলো মাঠ। সাকিব, নওগাঁ জেলা সংবাদদাতা : থৈ থৈ করছে হাঁটু জল। দেখলে বিশ্বাসই হবে না যে এটাই নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলা শহরের প্রাণ কেন্দ্রে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী ডাক বাংলো মাঠ। সাকিব, Rating: 0

Leave a Comment

scroll to top