মান্দায় ডোবা থেকে উদ্ধারকৃত বৃদ্ধার অর্ধগলিত লাশের পরিচয় মিলেছে

মান্দায় ডোবা থেকে উদ্ধারকৃত  বৃদ্ধার অর্ধগলিত লাশের  পরিচয় মিলেছে

মান্দা (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ
নওগাঁর মান্দায় ডোবা থেকে উদ্ধারকৃত বৃদ্ধার অর্ধগলিত লাশের পরিচয় মিলেছে। ওই বৃদ্ধার নাম পূর্ণিমা রাণী (৯০)। তিনি জেলার নজিপুর উপজেলার মৃত মাখন চন্দ্রের স্ত্রী। তবে প্রায় ৩০ বছর ধরে মান্দা উপজেলার প্রসাদপুর বাজারের নিমতলা এলাকায় বসবাস করে আসছিলেন। গত বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে প্রসাদপুর বাজারের হাসপাতাল মোড়ের মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের উত্তর-পশ্চিম কোণের এক ডোবা থেকে তার অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলা সদরের মধ্যে হলেও মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের উত্তর-পশ্চিম কোণে ঘন জঙ্গলে ভরা। সেখানে খুব কম মানুষই চলাচল করে থাকেন। বৃদ্ধা বুধবার রাতের কোন এক সময় প্রাকৃতিক প্রয়োজন সারতে ডোবায় গেলে হঠাৎ পিছলে পানিতে পড়ে  ডুবে যান। পরে নিশ্বাস বন্ধ হয়ে মারা যান। তার ২ ছেলে মেথরের কাজ করে থাকেন। এর অনেক আগেও সেই জঙ্গলের মধ্য থেকে এক অজ্ঞাত ব্যক্তির গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়েছিল।

মান্দা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) তারেকুর রহমান সরকার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে তিনি উপপরিদর্শ নজরুল ইসলামসহ সঙ্গীয় ফোর্সকে ঘটনাস্থলে পাঠান। পুলিশ মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের উত্তর-পশ্চিম কোণের এক ডোবা থেকে বৃদ্ধা পূর্ণিমার অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে। বৃদ্ধা প্রাকৃতিক প্রয়োজনে বুধবার রাতের কোন এক সময় ডোবায় গেলে পিছলে পানিতে পড়ে যান। পরে তার মৃত্যূ ঘটে থাকতে পারে।