পত্নীতলায় পরিযায়ী পাখির গুঞ্জণে মুখরিত কাঞ্চনদীঘি

পত্নীতলায় পরিযায়ী পাখির গুঞ্জণে মুখরিত কাঞ্চনদীঘি

পত্নীতলা প্রতিনিধি : নওগাঁর পত্নীতলায় পরিযায়ী পাখির গুঞ্জনে উপজেলার বেশ কিছু এলাকা মুখরিত হয়েছে। শীত কেটে গেলেও পরিযায়ী পাখিদের সমাগম কমেনি। প্রতিদিনই বাড়ছে পরিযায়ী পাখি প্রেমিদের মিলন মেলা।
উপজেলার বেশ কিছু এলাকায় পাখি প্রেমিদের অপরূপ দৃশ্য নয়নাভিরাম দৃষ্টি কেড়ে নেয় সবার সকাল না হতেই। মানুষের সাড়া শব্দ পেলেই দল বেঁধে ঝাঁকে-ঝাঁকে পাখি নিরাপদ দূরত্বে উড়ে যায়। আবার কিছুণ পরেই চলে আসে। দু-ডানা মেলে উড়ে যাওয়ার দৃশ্য মোবাইলফোনের ক্যমারায় ছবি ও ভিডিও ধারণ করছেন অনেকেই। উপজেলার নজিপুর ইউনিয়নের কাঞ্চন গ্রামের হযরত জহির উদ্দীন (র.) এর মাজার শরীফ ও কাঞ্চন দীঘি, তদসংলগ্ন আত্রাই নদী ও কাঁটাবাড়ি এলাকার আত্রাই নদী তীরবর্তী এলাকা, দোচাই গ্রাম, নজিপুর পৌর এলাকার হরিরামপুর, দিবর ইউনিয়নের দিবর দীঘি, চাঁন পুকুর মিশন, নির্মইল ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের বটতলী বাজারের কবরস্থান, মাটিন্দর ইউনিয়নের শাশইল দীঘি, আমাইর ইউনিয়নের নান্দাশ এলাকার ঘুখশির বিল, পাটিচরা ইউনিয়নের নাগোর গোলা, ছালিগ্রামসহ এলাকায় বিভিন্ন প্রজাতির পরিযায়ী পাখি অভয়াশ্রম ভেবে আশ্রয় নেয়। শামুখখোল, চখাচখি, পান কৌড়ি, পাতি হাঁস, টিকি হাঁস ও গিরি হাঁস প্রভৃতি পাখির গুঞ্জনে মুখরিত এসব এলাকা।
কাঞ্চন গ্রামের বাসিন্দা ও নজিপুর ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য পলাশ, আকরাম হোসেন, রিভা আক্তারসহ অনেকেই জানান, প্রতি বছরের মত এবারও অনেক বেশি পরিযায়ী পাখির আগমন ঘটেছে উপজেলার নিরাপদ আশ্রয় এলাকা হিসেবে বিশেষ ভাবে চিহ্নিত কাঞ্চন গ্রামের হযরত জহির উদ্দীন (র.) এর মাজার শরীফ ও কাঞ্চন দীঘি এবং তদসংলগ্ন আত্রাই নদীর দুই পাড়ে।
বাংলাদেশ জীব বৈচিত্র্য সংরণ ফেডারেশন (বিবিসিএফ) এর আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ও সেচ্ছাসেবী সংগঠন পতœীতলা উপজেলা জীব বৈচিত্র্য রা কমিটির সভাপতি শ্রী সুমন কুমার শীল বলেন, আমরা পরিযায়ী পাখি গুলোকে রায় বিভিন্ন ভাবে প্রচারণার কাজ করে যাচ্ছি। পাখি গুলো সংরণ ও রণাবেণ করার জন্য অত্র এলাকায় যোগাযোগ বৃদ্ধিকল্পে রাজশাহীর বন্য প্রাণি ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরণ বিভাগকে পরিদর্শনের জন্য জানানো হয়েছে।#