নওগাঁর পত্নীতলায় বিষাক্ত সাপের দংশনে কিশোরের মৃত্যু

নওগাঁর পত্নীতলায় বিষাক্ত সাপের দংশনে কিশোরের মৃত্যু

রায়হান আলম : নওগাঁর পত্নীতলায় বিষাক্ত সাপের দংশনে আব্দুল জলিল (১৫) নামে এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার আমবাটি গ্রামে সাপে দংশন করলে রাত আড়াইটার দিকে মারা যায়। নিহত আব্দুল জলিল ওই গ্রামের নইম উদ্দিনের ছেলে।
নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, আব্দুল জলিল ঘরের ভেতর চৌকিতে এবং তার বাবা-মা মেঝেতে শুয়ে ছিল। রাত সাড়ে ১০টার দিকে জানালা দিয়ে সাপ প্রবেশ করে আব্দুল জলিলের কানে কামড় দিয়ে থাকে। বিষাক্ত সাপের দংশনের যন্ত্রনায় কানের কাছ হাত দিয়ে সাপ ধরে চিৎকার দেয় আব্দুল জলিল। পরে তার চিৎকারে বাবা-ঘুম থেকে উঠে সাপটি মেরে ফেলে।
স্থানীয় পাটিচাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রায়হানুল আলম বলেন, ছেলেটি ঘুমের মধ্যে সাপটি ধরে ফেলে। পরে বাবা-ছেলে মিলে সাপটিকে মেরে ফেলে। শুনেছি স্থানীয় ভাবে ওঝা-কবিরাজ দিয়ে ঝাঁড়-ফুক দেয়া হয়েছিল। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথেই মারা যায়। তবে ঝাঁড়-ফুক দেরী হওয়ায় এ মৃত্যু হয়েছে বলে মনে করছেন তিনি।
পতœীতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পরিমল চক্রবর্তী নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, স্থানীয় ভাবে নিহতের পরিবার লাশটি দাফন করেছে বলে জানান তিনি।#