চাপের কারণে রোহিঙ্গা ফেরাতে সম্মত মিয়ানমার

-ব্রিটিশ হাইকমিশনার

চাপের কারণে রোহিঙ্গা ফেরাতে সম্মত মিয়ানমার
ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট সেটা টোনডিকসান

 বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট সেটা টোনডিকসান বলেছেন, সরকারের কূটনৈতিক তৎপরতায় দ্রুততম সময়ের মধ্যে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গারা তাদের নিজ দেশ মিয়ানমারে প্রত্যাবর্তন করতে পারবেন। বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক চাপের কারণেই মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের তাদের নিজ দেশে ফিরিয়ে নিতে সম্মত হয়েছে। অল্প দিনের মধ্যেই রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবর্তন শুরু হবে।

তিনি গতকাল টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে দানবীর রণদাপ্রসাদ সাহা রায়বাহাদুরের নিজ গ্রাম মির্জাপুর সাহাপাড়ায় শারদীয় পূজামন্ডপ এবং কুমুদিনী কমপ্লেক্স পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।
দুর্যোগের সময় রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়া বিষয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে ব্রিটিশ হাইকমিশনার বলেন, রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে প্রধানমন্ত্রী মানবিকতার পরিচয় দিয়েছেন। এ সময় কুমুদিনী পরিবারকে তাদের সেবা দানের জন্য ব্রিটিশ সরকারের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন রবার্ট সেটা। এ সময় বাংলাদেশে নিযুক্ত ডেপুটি ব্রিটিশ হাইকমিশনার জাবেদ পাটওয়ারী, কুমুদিনী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট অব বেঙ্গল (বিডি) লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাজীবপ্রসাদ সাহা, পরিচালক মতি সাহা ও শম্পা সাহা, কুমুদিনী হাসপাতালের পরিচালক ডা. প্রদীপ কুমার রায় প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সুত্র - বাংলাদেশ প্রতিদিন

.

.

.

.

.

.

.

.